২৪) বাতিল ফিরক্বার অন্তর্ভূক্ত মাদরাসায় কুরবানীর পশুর চামড়া দিলে তা কবুল হবেনা

২৪) বাতিল ফিরক্বার অন্তর্ভূক্ত মাদরাসায় কুরবানীর পশুর চামড়া দিলে তা কবুল হবেনা

যে কোনো দান-ছদকা, যাকাত-ফিৎরা, কাফফারা, কুরবানীর পশুর চামড়া বা তার মূল্য যে কোনো মাদরাসায় দিতে গিয়ে সাধারণ মুসলমানগণ অধিকাংশ সময়ই ভূল করে ফেলেন। অনেকেই দায়সারা ভাবে যাকে তাকেই দিয়ে দেয়। কিন্তু আমার এই দান মহান আল্লাহ পাক উনার দরবারে কবুল হবে কিনা সেটা ফিকির করেনা। যার ফলে সে দান বিফলে যায়, আমল নামায় যোগ হয়, পরকালে এর কোন বদলা পাওয়া যাবেনা। এজন্য হক্ব, নাহক্ব চিনতে হবে। আগে দেখতে হবে আমি যাকে দিচ্ছি সে হক্বানী বা হক্বপন্থী কিনা। হক্ব-নাহক্ব চেনার জন্য দৈনিক আল ইহসান ও মাসিক আল বাইয়্যিনাত শরীফ নিয়মিত পড়তে হবে।

বাতিল ফিরক্বা কারা? এ সম্পর্কে পবিত্র হাদীছ শরীফ রয়েছে। যেমন- ইমাম তিরমিযী রহমতুল্লাহি আলাইহি বর্ণিত পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “আমার উম্মত ৭৩ দলে বিভক্ত হবে, একটি দল ব্যতীত বাহাত্তরটি দলই জাহান্নামে যাবে। তখন হযরত সাহাবা-ই-কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুগণ বললেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! যে একটি দল নাযাত প্রাপ্ত, সে দলটি কোন দল? হুযূর পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বলেন, আমি এবং আমার সাহাবা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুমগণ উনাদের মত ও পথের উপর যারা কায়েম থাকবে, (তারাই নাযাত প্রাপ্ত দল)।”

এ পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে যে, ৭২ জনের মধ্যে মাত্র এক জন হক্ব; এছাড়া বাকি ৭২ জনই বাতিল অর্থাৎ বাতিলের সংখ্যা বেশি থাকবে। সূতরাং অধিকাংশ মাদরাসাই বাতিল ফিরক্বার অন্তর্ভূক্ত পক্ষান্তরে হক্ব কেবল একটি মাদরাসা। বর্তমানে ঢাকা রাজারবাগ শরীফ উনার মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদরাসা ও ইয়াতিমখানাই একমাত্র হক্ব মাদরাসা।

সার্চ করুন

সর্বশেষ পোস্ট

এই সম্পর্কিত আরো পোস্ট সমূহ



১) সাবধান! গরুর গোশত খাওয়া নিয়ে ভীতি ছড়াচ্ছে ভারত নিয়ন্ত্রিত মিডিয়াগুলো

মুসলমানদের গরুর গোশত খাওয়ার প্রতি হিন্দুদের যারপরনাই বিদ্বেষ। গরু জবাই, গরুর গোশত রাখা ও খাওয়া এসবের প্রতি ভীতি ছড়ানো হিন্দুদের জাতিগত এজেন্ডা। এসব এজেন্ডা জোরপূর্বক

বিস্তারিত পড়ুন

২) পবিত্র কুরবানি নিয়ে কোন প্রকার ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবেনা

প্রতি বছর পবিত্র কুরবানির সময় শুরু হয় নানা ধরণের ষড়যন্ত্র। ইতিপূর্বে পবিত্র কুরবানির আগে গরুর মধ্যে ‘এ্যানথ্রাক্স’ ভাইরাসের নামে এক ধরণের ফোবিয়া (কুরবানির পশু ভীতি)

বিস্তারিত পড়ুন

৩) পবিত্র কুরবানি ‘ব্যবস্থাপনা’র নামে ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নের চেষ্টা করলে দেশে গণবিস্ফোরণ ঘটতে পারে

বাংলাদেশে গরু জবাই নিয়ে বিশেষ করে পবিত্র কুরবানি ঈদের সময় ষড়যন্ত্র নতুন কোনো বিষয় না। ষড়যন্ত্র বিগত বছরগুলোতে পবিত্র কুরবানি নিয়ে সমস্যা সৃষ্টি করতে কুচক্রী

বিস্তারিত পড়ুন

৪) যে পবিত্র কুরবানির উসীলায় চাঙ্গা হয়ে উঠে গোটা দেশের অর্থনিতি

এক কুরবানির ঈদের বরকতে চাঙ্গা হয়ে উঠে গোটা দেশের অর্থনিতি। হবে না কেন? এর সাথে জড়িত রয়েছে হাজার হাজার ব্যবসা আর হাজার হাজার টাকার লেনদেন।

বিস্তারিত পড়ুন