৫৫) কুরবানী নিয়ে চুলকানি। মুসলমান হলে আপনি কেন সহ্য করবেন?

৫৫) কুরবানী নিয়ে চুলকানি। মুসলমান হলে আপনি কেন সহ্য করবেন?

কিছু মহল বেশ কিছু দিন থেকে কুরবানী নিয়ে অনর্থক চুলকানিমূলক বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছে। এজন্য সেমিনারসহ বিভিন্ন বৈঠকের ও আয়োজন করে। আর ইসলাম বিদ্বেষী মিডিয়া তাদের এ চুলকানির প্রথম কাতারের সহযোগী হিসেবে কাজ করছে। কুরবানী ইসলাম ধর্মের অন্যতম নিদর্শন এবং ইবাদত। এলোকগুলো আজ কুরবানী তো কাল নামায নিয়ে চুলকানি শুরু করবে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় মসজিদ ভাঙ্গার ষড়যন্ত্র চলছে বিভিন্ন অযুহাতে। এখনই তীব্র প্রতিবাদ না করলে ৯৮% মুসলমানের দেশে বাংলাদেশ থেকেই মুসলমানদের উচ্ছেদ হতে হবে। তাই নিজেকে মুসলমান মনে করলে কুরবানী নিয়ে সব রকম ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে।

সবাইকে এটা জানিয়ে দিতে হবে:
১) আমার কুরবানী আমি আমার সুবিধামত স্থানে দেব, এতে বাধা দেয়ার অধিকার কারো নেই।
২) প্রত্যেক ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কুরবানীর পশুর হাটের ব্যবস্থা করতে হবে।
৩) কুরবানীর পূর্ব থেকেই সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন টিমকে সুসংগঠিত করতে হবে।

সার্চ করুন

সর্বশেষ পোস্ট

এই সম্পর্কিত আরো পোস্ট সমূহ



১) সাবধান! গরুর গোশত খাওয়া নিয়ে ভীতি ছড়াচ্ছে ভারত নিয়ন্ত্রিত মিডিয়াগুলো

মুসলমানদের গরুর গোশত খাওয়ার প্রতি হিন্দুদের যারপরনাই বিদ্বেষ। গরু জবাই, গরুর গোশত রাখা ও খাওয়া এসবের প্রতি ভীতি ছড়ানো হিন্দুদের জাতিগত এজেন্ডা। এসব এজেন্ডা জোরপূর্বক

বিস্তারিত পড়ুন

২) পবিত্র কুরবানি নিয়ে কোন প্রকার ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবেনা

প্রতি বছর পবিত্র কুরবানির সময় শুরু হয় নানা ধরণের ষড়যন্ত্র। ইতিপূর্বে পবিত্র কুরবানির আগে গরুর মধ্যে ‘এ্যানথ্রাক্স’ ভাইরাসের নামে এক ধরণের ফোবিয়া (কুরবানির পশু ভীতি)

বিস্তারিত পড়ুন

৩) পবিত্র কুরবানি ‘ব্যবস্থাপনা’র নামে ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নের চেষ্টা করলে দেশে গণবিস্ফোরণ ঘটতে পারে

বাংলাদেশে গরু জবাই নিয়ে বিশেষ করে পবিত্র কুরবানি ঈদের সময় ষড়যন্ত্র নতুন কোনো বিষয় না। ষড়যন্ত্র বিগত বছরগুলোতে পবিত্র কুরবানি নিয়ে সমস্যা সৃষ্টি করতে কুচক্রী

বিস্তারিত পড়ুন

৪) যে পবিত্র কুরবানির উসীলায় চাঙ্গা হয়ে উঠে গোটা দেশের অর্থনিতি

এক কুরবানির ঈদের বরকতে চাঙ্গা হয়ে উঠে গোটা দেশের অর্থনিতি। হবে না কেন? এর সাথে জড়িত রয়েছে হাজার হাজার ব্যবসা আর হাজার হাজার টাকার লেনদেন।

বিস্তারিত পড়ুন