৫৬) কুরবানী হবে জঙ্গলে আর পূজা হবে বাড়িতে বাড়িতে!!

৫৬) কুরবানী হবে জঙ্গলে আর পূজা হবে বাড়িতে বাড়িতে!!

ঠিক, এই উদ্যোগটিই নিচ্ছে সরকার। সিটি কর্পোরেশন থেকে উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে, সামনের বার থেকে ঢাকায় প্রত্যেকে ব্যক্তিগতভাবে বাসার পাশে কুরবানী করতে পারবে না। উল্লেখ্য, নতুন পদ্ধতিতে নিজের কুরবানী নিজে করা সুন্নত সেই সুযোগ পাবেন না, আর বিজাতীয় পদ্ধতিতে জবাই করতে হবে, যে উপায়ে কুরবানী-ই হবে না।

মূলত: ইউরোপ-আমেরিকাসহ কাফির রাষ্ট্রগুলোতে মুসলমানদের কুরবানীকে অবজ্ঞা করা হয়, এবং পরিবেশ দূষণের কথা বলে শহর থেকে দূর এলাকায় কসাই খানায় পাঠিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু যে দেশে ৯৮ ভাগ মুসলমান, সেখানে কেন এ সিস্টেম চালু হবে ?? আর নতুন সিস্টেমে কুরবানী অর্থ দিয়ে আসলে গোশত পৌছে যাবে, কিন্তু কুরবানী উপলক্ষে গরুর গোশত কাটাকটি নিয়ে আমরা যে আনন্দ করি সেটা মাটি হয়ে যাবে।

মূলত” পরিবেশ দূষনের অজুহাত দিয়ে মুসলমানদের ঈদ আনন্দকে নষ্ট করার এটা কাফিরদের ষড়যন্ত্র এবং দীর্ঘদিনের পরিকল্পনা। কারণ দূনিয়ার অনেক জিনিস দিয়েই পরিবেশ দূষণ হয়, কিন্তু শুধু কুরবানী নিয়ে তাদের এত কেন চুলকানি সেটা সহজেই অনুমান করা যায়। তারা অজুহাত দেয়, সিটি কর্পোরেশন ১১ দিনেও বর্জ সরাতে পারেনি। আমি বলবো এটা সিটি কর্র্পোরেশনের দোষ। প্রধানমন্ত্রী কোথাও গেলে ১ দিনে নতুন রাস্তা বানায় দিতে পারে, কিন্তু কুরবানীর বর্জ্য সাফ করতে পারে না, এটা মানা যায় না। * মূলত: ঢাকা সিটি কর্পোরেশন উত্তরের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রধান হচ্ছে একটা হিন্দু, নাম বিপন কুমার সাহা, তার মাথা থেকেই এসব কু-বুদ্ধি আসছে। যেখানে সেখানে গরু কুরবানী করলে হিন্দুদের সমস্যা হয়, তাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হয়, সেটা বিবেচনা করেই শহর থেকে বাইরে কুরবানীর টার্গেট নেয়া হচ্ছে।

এই সম্পর্কিত আরো পোস্ট সমূহ



হযরত হাবীল আলাইহিস সালাম উনার ও কাবীলের কুরবানী

পৃথিবীর প্রথম কুরবানী সংঘটিত হয় হযরত আবুল বাশার ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার যমীনে অবস্থানকালীন সময় থেকেই। হযরত আবুল বাশার ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম ও উম্মুল বাশার

বিস্তারিত পড়ুন

হযরত ইসমাঈল আলাইহিস সালাম তিনিই যবীহুল্লাহ

‘তাফসীরে মাযহারী’ উনার মধ্যে উল্লেখ আছে, “এ কথা সুনিশ্চিত যে, ‘পবিত্র সূরা ছফফাত শরীফ’ উনার ১০১নং আয়াত শরীফ উনার মধ্যে উদ্ধৃতغلام حليم অর্থাৎ ‘ধৈর্যশীল পুত্র’

বিস্তারিত পড়ুন