বাতিল বাহাত্তুর ফিরক্বার অন্তর্ভূক্তরা জাহান্নামী; এদেরকে কুরবানীর চামড়া দেয়া থেকে সাবধান!

বাতিল বাহাত্তুর ফিরক্বার অন্তর্ভূক্তরা জাহান্নামী; এদেরকে কুরবানীর চামড়া দেয়া থেকে সাবধান!

বাতিল বাহাত্তুর ফিরক্বা সম্পর্কে মসনদে আহ্মদ ও আবূ দাউদ উনাদের বর্ণনায়- হযরত মুয়াবিয়া রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার হতে বর্ণিত আছে যে, “বাতিল ৭২টি দল জাহান্নামে যাবে, আর একটি দল জান্নাতে যাবে। মূলতঃ সে দলটিই হচ্ছে আহ্লে সুন্নত ওয়াল জামায়াত।” (মেশকাত, মেরকাত, লুময়াত)। উল্লিখিত হাদীস শরীফ দ্বারা মূলতঃ এটাই বুঝানো হয়েছে যে, উম্মতে হাবীবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তথা “কলেমা গো মুসলমানই” ৭৩ দলে বিভক্ত হবে, তন্মধ্যে ৭২টি দলই জাহান্নামী, গোমরাহ্ ও বাতিল, মূলতঃ তারা মুসলমানের অন্তর্ভূক্ত নয়। আর একটি মাত্র দল জান্নাতী, আর সেটা হচ্ছে আহ্লে সুন্নত ওয়াল জামায়াত।

সূতরাং আপনার পবিত্র কুরবানীর পশুর চামড়া কোন মাদরাসায় দেয়ার আগে সতর্ক হোন। খোদা না করুন সেটা যদি কোন জাহান্নামী দলের তথা বাতিল বাহাত্তুর ফিরক্বার অন্তর্ভূক্ত কোন মাদরাসায় যায় তাহলে আল্লাহ পাক উনার অশন্তুষ্টির কারণে সওয়াবের পরিবর্তে গুনাহ হবে। কবুল হওয়ারতো প্রশ্নই আসেনা। তাহলে বাতিল ফিরক্বাদের কিভাবে চিনবেন? সহজ কয়েকটি উপায় হচ্ছে- যারা পবিত্র মিলাদ শরীফ-ক্বিয়াম শরীফ উনার বিরোধীতা করে, ছবি তোলে, টিভি দেখে, গান বাজনা শোনে, খেলাধুলা করে, রাজনীতি তথা গণতন্ত্র, হরতাল, লংমার্চ করে, জিহাদের নামে বোমা ফুটায়, সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে। বাহ্যিক সুরতে এরা মাথায় কিস্তি, পাঁচকলি টুপি পড়ে, সুন্নতি পাগড়ি পড়েনা, কোনা ফাড়া পাঞ্জাবী পড়ে, গোঁফ চাছে, মাথা মুন্ডন করে ইত্যাদি। এসব আলামত যুক্ত নামধারী মাওলানারাই বাতিল ফিরক্বার অন্তর্ভূক্ত। এদেরকে পবিত্র কুরবানীর চামড়া দিলে তা কবুল হবেনা।

এই সম্পর্কিত আরো পোস্ট সমূহ



হযরত হাবীল আলাইহিস সালাম উনার ও কাবীলের কুরবানী

পৃথিবীর প্রথম কুরবানী সংঘটিত হয় হযরত আবুল বাশার ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার যমীনে অবস্থানকালীন সময় থেকেই। হযরত আবুল বাশার ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম ও উম্মুল বাশার

বিস্তারিত পড়ুন

হযরত ইসমাঈল আলাইহিস সালাম তিনিই যবীহুল্লাহ

‘তাফসীরে মাযহারী’ উনার মধ্যে উল্লেখ আছে, “এ কথা সুনিশ্চিত যে, ‘পবিত্র সূরা ছফফাত শরীফ’ উনার ১০১নং আয়াত শরীফ উনার মধ্যে উদ্ধৃতغلام حليم অর্থাৎ ‘ধৈর্যশীল পুত্র’

বিস্তারিত পড়ুন