পবিত্র কুরবানির পশু নিয়ে ব্যঙ্গ করা, কার্টুন প্রকাশ করা, সেলফী তোলা প্রসঙ্গে

পবিত্র কুরবানির পশু নিয়ে ব্যঙ্গ করা, কার্টুন প্রকাশ করা, সেলফী তোলা প্রসঙ্গে

কুরবানি যেমন পবিত্র তেমনি কুরবানির পশুও পবিত্র এবং মহান আল্লাহ পাক উনার নিদর্শনসমূহ উনাদের অন্তর্ভুক্ত। মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “হে ঈমানদারগণ! তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার নিদর্শনসমূহ, সম্মানিত হারাম মাস উনাদের, কুরবানির জন্য ওই সমস্ত পশু যাদেরকে চিহ্নিত করা হয়েছে এবং ওই সমস্ত ব্যক্তি যারা মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টির জন্য হজ্জ পালন করতে যান উনাদেরকে ইহানত (অবমাননা) করো না।” (পবিত্র সূরা মায়িদা শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ২)

উপরের পবিত্র আয়াত শরীফ দ্বারা স্পষ্টরূপে প্রমাণ হয় পবিত্র কুরবানি উনার পশুসমূহ পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার নিদর্শন, যা তা’যীম-তাকরীম করা মুসলমান উনাদের জন্য কল্যাণের কারণ। পাশাপাশি এই পবিত্র নিদর্শনসমূহ নিয়ে ঠাট্টা-বিদ্রƒপ করা, তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করা কুফরী এবং কবীরা গুনাহ। নাউযুবিল্লাহ!
প্রসঙ্গত, অনেকেই এই বিষয়টা না জানার কারণে পবিত্র কুরবানির জন্য নির্ধারিত পশুর ছবি তুলে থাকে, পশুর সাথে সেলফী তুলে, জবাই করার সময় ভিডিও করে থাকে। যার ফলে তার নিজের অজান্তেই কবীরা গুনাহ করে। অর্থাৎ যেহেতু প্রাণীর ছবি তোলা হারাম সেহেতু কুরবানির পশুর ছবি তুললে বা ভিডিও করলে মহান আল্লাহ পাক উনার অসন্তুষ্টির ফলে কবীরা গুনাহ হয়। নাউযুবিল্লাহ!

এই সম্পর্কিত আরো পোস্ট সমূহ



হযরত হাবীল আলাইহিস সালাম উনার ও কাবীলের কুরবানী

পৃথিবীর প্রথম কুরবানী সংঘটিত হয় হযরত আবুল বাশার ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার যমীনে অবস্থানকালীন সময় থেকেই। হযরত আবুল বাশার ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম ও উম্মুল বাশার

বিস্তারিত পড়ুন

হযরত ইসমাঈল আলাইহিস সালাম তিনিই যবীহুল্লাহ

‘তাফসীরে মাযহারী’ উনার মধ্যে উল্লেখ আছে, “এ কথা সুনিশ্চিত যে, ‘পবিত্র সূরা ছফফাত শরীফ’ উনার ১০১নং আয়াত শরীফ উনার মধ্যে উদ্ধৃতغلام حليم অর্থাৎ ‘ধৈর্যশীল পুত্র’

বিস্তারিত পড়ুন